মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

চুনতির বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য বিট কর্মকর্তাকে প্রাননাশের হুমকিঃ থানায় জিডি

প্রকাশিত : ১২:৫৪ পূর্বাহ্ন মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

লোহাগাড়া প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য বিট কর্মকর্তা মোঃ ফরিদ উদ্দিন তালুকদারকে প্রাননাশের হুমকি দিয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে।

এ ব্যাপারে বিট কর্মকর্তা মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন তালুকদার বাদী হয়ে চুনতি বনপুকুর পেলিরজুম এলাকার সাহিদা বেগম (৩০) ও তার স্বামী সাইফুল ইসলামকে বিবাদী করে লোহাগাড়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী(জিডি) দায়ের করেছেন। লোহাগাড়া থানার জিডি নং ২৭৭, ০৬/০৪/২০২২ইং।

জিডি সুত্রে প্রকাশ, উপজেলার চুনতি বনপুকুর পেলিরজুম সাইফুল ইসলাম ও সাহেদা বেগম সামাজিক বনায়নের জায়গার পার্শ্বে অবৈধভাবে ঘর নির্মাণ করে। গেল বছরের ডিসেম্বর মাসে বনবিভাগের জায়গায় দখলকৃত ঘরটি উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন বিট কর্মকর্তা মুহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন তালুকদার সহ সঙ্গীয় বনবিভাগের কর্মীরা। চট্টগ্রাম বন আদালতে মামলনা নং ০১/চবি ২০২১-২২ তারিখ ০৫/১২/২০২১ইং ধারা বন আইনের ২৬(১ক) (খ) দায়ের করা হয়। যাহা বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছেন। গত ৫ এপ্রিল বিকেল ৪টার দিকে তিনি তার সঙ্গীয় ফোর্সদের নিয়ে টহলে গেলে উল্লেখিত বিবাদগণ মামলাটি তুলে নেওয়ার হুমকি-ধমকি প্রদান করেন। মামলা তুলে না নিলে নারী নির্যাতন মামলা ও খুন করিবে বলে হুমকি-ধমকি প্রদান করেন বলেও অভিযোগে উল্লেখ।

চুনতি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য বিট কর্মকর্তা মোঃ ফরিদ উদ্দিন তালুকদার জানান, আমি বিট কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর  সরকারী সম্পদ করায় কাজ করে যাচ্ছি। বনবিভাগের জায়গা উচ্ছেদ অভিযান করতে গিয়ে এলাকার কিছু ভূমি দস্যুদের হয়রানীর স্বীকার হতে হচ্ছে। গেল বছরের ডিসেম্বর মাসে চুনতি বনপুকুর পেলিরজুম এলাকায় একটি ঘর উচ্ছেদ অভিযান করি। পরবর্তীতে সেটা মামলা দায়ের করি। কিন্তু প্রতিপক্ষ সাইফুল ও তার স্ত্রী সাহিদা বেগম আমাকে মামলাটি প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন। মামলা তুলে না নিলে আমাকে নারী নির্যাতন মামলা ও খুন করিবে বলে হুমকি-ধমকি প্রদান করেন বলেও তিনি জানান।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মুহাম্মদ আতিকুর রহমান জানান, বিষয়টি তদন্তপুর্বক বিবাদীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্হা নেওয়া হবে।

অন্যদিকে,অভিযুক্তদের সাথে যোগাযোগ করতে না পারায় তাদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

আরো পড়ুন