মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

উদ্বোধনের অপেক্ষায় জামছড়ি খালের উপর নির্মিত সেই পিসি গার্ডার সেতু

প্রকাশিত : ১:০৪ পূর্বাহ্ন মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২

 

রায়হান সিকদারঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার বার আউলিয়া টংকাবর্তী সড়কের ১৬ কিঃ মিঃ জামছড়ি খালের উপর নব নির্মিত ৩০.৪৮৮ মিটার লম্বা পিসি গার্ডার সেতুর কাজ সমাপ্ত করা হয়েছে। সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর বান্দরবান এ প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেন।

জানা যায়,লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া বার বার আউলিয়া টংকাবর্তী সড়কটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপুর্ণ হিসেবে বেশ পরিচিত। এসড়কটি দিয়ে হাজার হাজার গাড়ি,যানবাহন এবং হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করে। এ সতকের একদম পুর্ব পার্শ্বে বান্দরবান পার্বত্য জেলার বান্দরবান সদর উপজেলার টংকাবর্তী ইউনিয়ন। এ সড়ক দিয়ে পার্বত্য জেলার অনেক মানুষ যাতায়াত করে থাকে। সড়কের চরম্বা পদুয়া অংশে জামছড়ি খাল রয়েছে। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।অনেকবার ব্রীজটি নির্মাণ করা হলে ভেঙ্গে যেতো। অবশেষে এলাকার মানুষের প্রাণের দাবীর প্রেক্ষিতে সরকারের পক্ষ থেকে বান্দরবান সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে এই গার্ডার সেতুটি নির্মিত করা হয়েছে।ব্রীজটি যাতায়াতের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।ব্রীজ টি পেয়ে এলাকার মানুষ এখন খুশীতে আত্নহারা। শীঘ্রই ব্রীজটি উদ্বোধন করা হবে বলে জানা গেছে।

বিগত ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ব্রীজের ভিত্তিপ্রস্তর স্হাপন করেন চট্টগ্রাম-১৫ আসনের সংসদ সদস্য ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।

এলাকার বাসিন্দা ও ব্যবসায়ী মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম জানান, এ ব্রীজটি হওয়ায় আমরা অনেক বেশী আনন্দিত। একসময় এই ব্রীজ দিয়ে ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করতে হতো। যোগাযোগ ব্যবস্হা তেমন ভাল ছিলনা।আমরা এখন অনেক বেশী।

এলাকার বাসিন্দা শাহ আলম বাদশা জানান,এই ব্রীজটি নির্মাণ হওয়ায় চলাচল করতে আমাদের জন্য খুব সুবিধা হয়েছে। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চিরকৃতজ্ঞ।

ঠিকাদার মুহাম্মদ আবিদ হোসেন প্রকাশ মানু জানান,দীর্ঘদিনের মানুষের প্রাণের দাবী ছিল এই অবহেলিত স্পটে একটি সুন্দর ও টেকশই ব্রীজ নির্মাণ করার। বিগত সময়ে দীর্ঘদিন ধরে ব্রীজটি জোড়া তালি দিয়ে নির্মাণ হওয়ার পর সাধারণ মানুষ চলাচলে ভোগান্তির শিকার হতে হতো। প্রায় বান্দরবান পার্বত্য জেলার সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের বাস্তবায়নে বর্তমান সরকারের পক্ষ থেকে প্রায় ৬ কোটি টাকা ব্যয়ে জামছড়ি খালে গার্ডার সেতুতি নির্মাণ করা হয়েছে। ব্রীজটি এখন উন্মুক্ত করা হয়েছে। সাধারণ মানুষ এখন স্বস্তিতে চলাচল করছে । শীঘ্রই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে সেতুটি উদ্বোধন করা হবে বলেও তিনি জানান।

বান্দরবান সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী মাসুম জানান,বার আউলিয়া টংকাবর্তী সড়কের ১৬ কিঃ মিঃ জামছড়ি খালের উপর নব নির্মিত ৩০.৪৮৮ মিটার লম্বা পিসি গার্ডার সেতুর কাজ সমাপ্ত হয়েছে। সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে গার্ডার ব্রীজটি উদ্বোধন করা হবে বলেও তিনি জানান।

আরো পড়ুন