বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ইজারাবিহীন বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইউএনওকে নির্দেশ দিলেন আব্দুল মোতালেব এমপি

প্রকাশিত : ১০:৪৮ অপরাহ্ন বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

 

রায়হান সিকদার,লোহাগাড়া প্রতিনিধিঃ

আমি প্রতিহিংসা পরায়ণ ব্যক্তি নই।সবার আমার কাছে সমান,আপনজন। লোহাগাড়ায় কোন ভাবেই ইজারা ছাড়া বালু উত্তোলন করা যাবেনা।কোন কোন জায়গায় গেইট বসিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনকারীরা চাঁদা নিচ্ছেন। এগুলো,বন্ধ করতে হবে।কেউ যদি ইজারা ছাড়া বালু উত্তোলন করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে লোহাগাড়ার ইউএনওকে কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১৫ আসনের নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এম.এ মোতালেব সিআইপি।১৫ জানুয়ারি সকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে উপজেলা আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখেন আবদুল মোতালেব এমপি। তিনি বলেন,লোহাগাড়ায় কোনভাবে মাটির টপসয়েল কাটা যাবেনা।ইজারা বিহীন বালু উত্তোলন করা যাবেনা। যানজট নিরসনে বটতলী স্টেশনে নতুনভাবে এডহক কমিটি গঠন করতে হবে। নতুন এডহক কমিটিন সদস্যরা নির্বাচনে কোন প্রার্থী হতে পারবেনা। তারা শুধু ভোটার হালনাগাদ করতে কাজ করতে পারবেন। পরবর্তীতে তারা নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করতে কাজ করবে। নির্বাচনী পরবর্তীতে কোন ধরণের সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি। সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার জনপথ শান্তির জনপথ। বটতলী শহর উন্নয়ন কমিটির নির্বাচিতরা আগামীতে নেতৃত্ব দিবেন। কমিউনিটি ক্লিনিক গুলো তে নতুন ভাবে সাজাতে হবে। লোহাগাড়ার চিকিৎসা সেবা কে এগিয়ে নিতে হবে। আমার কাছে সবাই সমান। কোন ধরণের জনসাধারণ কে হয়রানি করা যাবেনা। গায়েবী মামলা দেওয়া যাবেনা। আমাকে কেউ বিক্রি করবেন না। আমাকে বিক্রি করে কেউ যদি বিভ্রান্তি ছড়ান তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
আবদুল মোতালেব এমপি আরও জানান,স্কুলের সভাপতি শিক্ষিত না হলে সে স্কুলে শিক্ষিত জাতি সৃষ্ঠি হবেনা। জাতিকে মেধাবী করতে হলে শিক্ষাখাতে পরিবর্তন আনতে হবে। গভীর নলকূপ যেন সবাই ভোগ করে ব্যবহার করতে পারে তাদেরকে দিতে হবে।বাউন্ডারি গেইটের ভিতরে গভীর নলকুপ বসানো যাবেনা। সার্বজনীন ভাবে গভীর নলকূপ দিতে হবে।

লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মুহাম্মদ ইনামুল হাছানের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহীম কবির, উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) নাজমুন লায়েল, লোহাগাড়া থানার ওসি মোঃ রাশেদুল ইসলাম, লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য প.প কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ হানিফ, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ খালেকুজ্জামান,উপজেলা কৃষি অফিসার কাজি শফিউল ইসলাম,লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন হিরু,লোহাগাড়া উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আকতার,লোহাগাড়া ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সামশুল আলম,সহ-সভাপতি শিল্পপতি শাহাব উদ্দিন চৌধুরী,উপজেলা পিআইও মাহবুব আলম শাওন, উপজেলা প্রকৌশলী ইফরাত বিন মুনীর, পদুয়া বনরেঞ্জ কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শেদ,বড়হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিজয় কুমার বড়ুয়া,লোহাগাড়া সদরের চেয়ারম্যান নুরুচ্ছাফা চৌধুরী,পদুয়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুনর রশিদ,চুনতি ইউপি চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদিন,আধুনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নাজিম উদ্দিন,পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক, আমিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান এসএম ইউনুচ, কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান এম.এ ওয়াহেদ, চরম্বা ইউপি চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিনসহ বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি,রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও সাংবাদিকবৃন্দরা।

আরো পড়ুন