শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২

সকলের সম্মিলিত প্রয়াসই মাদক নির্মূলে কার্যকর ভূমিকা রাখবেঃ ইউএনও  শরীফ উল্যাহ

প্রকাশিত : ১:০১ অপরাহ্ন শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২

 

লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় মঙ্গলবার(২৮জুন) দিনব্যাপী উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে মাদকদ্রব্য অপব্যবহার রোধকল্পে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

লোহাগাড়া উপজেলা প্রশাসন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় চট্টগ্রামের যৌথ আয়োজনে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ উল্যাহ।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় চট্টগ্রামের পরিদর্শক মো: সাইফুল ইসলামের সঞ্চালনায় কর্মশালায় আলোচক ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির, উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভূমি) মোহাম্মদ শাহজাহান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার- পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ হানিফ, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ আতিকুর রহমান, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো: মনিরুল ইসলাম, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা আবদুর রাজ্জাক ও উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান নিবাস দাশ সাগর প্রমূখ।

প্রবন্ধ উপস্থাপক ইউএনও শরীফ উল্যাহ বলেন, মাদক- বাল্যবিবাহ ও ইভটিজিং এর চেয়ে ভয়ঙ্কর। তাই মাদকের বিরুদ্ধে রুখে না দাড়াঁলে আগামীতে পরিবার থেকে সমাজ ও সমাজ থেকে বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে যেতে পারে। কোন জায়গা থেকে মাদক সমাজে প্রবেশ করছে সেই জায়গা চিহ্নিত করতে হবে। মাদককে ঘৃণা করার পাশাপাশি মাদকাসক্তদেরকেও ঘৃণা করতে হবে। তাদের সাথে মেলামেশা বন্ধ করতে হবে। ইউপি চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও সাংবাদিকসহ সুশীল সমাজের ব্যক্তিরা মাদকের বিরুদ্ধে ভূমিকা পালন করতে হবে।
ইউএনও শরীফ উল্যাহ বলেছেন, মাদকমুক্ত পরিবার, মাদকমুক্ত সমাজ গড়তে পিতা-মাতা তাদের অবস্থান থেকে, শিক্ষক, সহপাঠী, বন্ধু, আত্মীয়, শুভাকাঙ্ক্ষী যার যার অবস্থান থেকে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। কেউ যাতে মাদকে আসক্ত না হয় সে বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে এবং কঠোর নজরদারি রাখতে হবে। মা-বাবা ছেলে-মেয়ের ব্যাপারে উদাসীন থাকলে পরিবারের জন্য মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। কেউ মাদকাসক্ত হলে তাকে পুনর্বাসন করা এবং সঠিক পথে নিয়ে আসার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।
তিনি আরও বলেন, আপনার ছেলে কোথায় যাচ্ছে, কি করছে, কার সাথে মিশছে, নেশা করছে কিনা, বিড়ি- সিগারেট খাচ্ছে কিনা তা পিতা-মাতাসহ পরিবারের সবাইকে খেয়াল রাখতে হবে। এলাকার চেয়ারম্যান- মেম্বাররা এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা রাখতে হবে ।
কর্মশালায় লোহাগাড়া উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, ইউপি চেয়ারম্যান- সদস্য ও সচিববৃন্দ, শিক্ষক, সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ শতাধিক ব্যাক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন