মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

চরম্বার ৭নং ওয়ার্ডে পুণরায় মানুষের প্রকৃত সেবক হয়ে কাজ করতে চান বর্তমান মেম্বার জয়নাল আবেদীন

প্রকাশিত : ১২:০৭ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

 

লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড থেকে আবারও মেম্বার পদে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন বর্তমান সফল মেম্বার, গরীব-দুঃখী মেহনতী মানুষের পরম বন্ধু মোঃ জয়নাল আবেদীন প্রকাশ জানু মেম্বার। তিনি তার এলাকায় জনসমর্থন নিয়ে এখনো অনেক এগিয়ে রয়েছেন। এলাকার লোকজন তার সেবায় মুগ্ধ। তার ওয়ার্ডের কিছু পাহাড়ি জনপথের মানুষও তার জনপ্রতিনিধির ভূমিকায় প্রশংসিত।

নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা না হলেও তিনি ইতোমধ্যে নিজ এলাকায় প্রচারণা শুরু করেছেন। প্রচার-প্রচারণায় তিনি সাধারণ মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হচ্ছেন। ব্যাপক সাড়া মিলেছে জনগণের।তিনি গত নির্বাচনে মেম্বার পদে নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই তার ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নে এবং মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন। সরকারী বরাদ্দের বাইরেও তার ব্যক্তিগত অর্থায়নে এলাকার উন্নয়নে কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। এলাকায় সঠিক বিচার করতে তিনি প্রচেষ্ঠা চালিয়েছেন। কোনদিন অন্যায়কে প্রশ্রয় দেননি। মানুষের কল্যাণে তিনি যতটুকু পেরেছেন ঠিক কতটুকু মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত রেখে কাজ করেছেন।

চরম্বার ৭নং ওয়ার্ডের বর্তমান সফল মেম্বার ও আগামীর মেম্বার পদপ্রার্থী মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন বলেন, জনগণের ভোটে আমি গতবারের নির্বাচনে বিপুল ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত হয়ে মানুষের কল্যাণে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি সর্বদাই কাজ করেছি।সাধারণ মানুষ সবসময় আমাকে পেয়েছে। আমার ওয়ার্ডের মানুষের সুখে-দুঃখে সবসময় পাশে থেকেছি। কোন দিন অন্যায় অবিচার করিনি। সাধারণ মানু্ষকে হয়রানী করিনি। আবার কোনদিন অন্যায়কে প্রশ্রয় দিইনি। আমার ব্যক্তিগত তহবিল হতে যতটুকু পেরেছি সাধারণ মানুষের পাশে থেকে সর্বদাই নিজেকে মানুষের কল্যাণে কাজ করার চেষ্ঠা করেছি।।আমি আবারও ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। জনগণই আমার প্রকৃত শক্তি। চরম্বার ৭নং ওয়ার্ডের জনগণ আমাকে পুণরায় তাদের মুল্যবান ভোট দিয়ে বিপুল ভোটের মাধ্যমে বিজয়ী করবেন বলে তিনি দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন।

চরম্বার ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার ও আগামীর মেম্বার পদপ্রার্থী মুহাম্মদ জয়নাল আবেদীন এলাকার সর্বস্তরের মানুষের দোয়া,সহযোগীতা, ভালবাসা ও সমর্থন কামনা করেছেন।

আরো পড়ুন