মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

লোহাগাড়ায় বিদ্যালয়ের বারান্দায় যেন এক ঝুলন্ত উদ্যান!

প্রকাশিত : ১১:৪০ পূর্বাহ্ন মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১

রায়হান সিকদার, লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার অন্যতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান মধ্য লোহাগাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। বারান্দা এবং কয়েকটি কক্ষের সমন্বয়ে মধ্য লোহাগাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি।  এই বিদ্যালয়কে  ঘিরে তৈরী করা হয়েছে মনোরম শিক্ষা ঝুলন্ত উদ্যান। উদ্যানটি একদিকে যেমন বিদ্যালয়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে সক্ষম হয়েছে আবার অন্যদিকে শিক্ষার্থীদের শিক্ষার পরিবেশকে করেছে মনোমুগ্ধকর ও প্রানবন্ত।

সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে জানা যায়, উপজেলার মধ্য লোহাগাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি উত্তর-দক্ষিণের মধ্য দিয়ে অবস্হিত। এই বিদ্যালয়ে বারান্দায় আকর্ষণীয় মাধ্যমে তৈরি করা হয়েছে শিক্ষা ঝুলন্ত উদ্যান। বারান্দার ছাদে ঝুলানো আছে ১৮টি বিভিন্ন ফুলের টব আর ফ্লোরে বসানো হয়েছে বাহারি রঙের পাতাবাহারসহ বিভিন্ন ফুলের ১৬টি টব। উপরে ও নীচে সারি সারি টবগুলো সাজানো আছে। মনে হয়েছে অনন্য সৌন্দর্যের নিদর্শন। টব এবং ঝুলন্ত উদ্যান মাটি দিয়ে তৈরী। এসব টবে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা পানি দিয়ে পরিচর্চা করেন।
অন্যদিকে, বিদ্যালয়ে প্রবেশ করার সময় দৃষ্টিনন্দন টপ ও ঝুলন্ত উদ্যানে দৃশ্যকে করে তুলেছে শিক্ষার্থী ও শিক্ষককদের প্রাণবন্ত।  সুন্দর টাইলস করে সাজানো হয়েছে বিদ্যালয়ের  বারান্দা। ঝুলন্ত উদ্যানটি দেখে শিক্ষার্থী ও  অভিভাবক-অভিভাবিকা অবাক হচ্ছেন।এই ঝুলন্ত উদ্যানে শোভা পাচ্ছে মনোরম পরিবেশ। শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার আগ্রহ বাড়ানো এবং সুন্দর এরকম মনোমুগ্ধকর পরিবেশ  এটি গড়ে তুলতে অনন্য প্রেরণা যুগিয়েছেন উপজেলা সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার ওমর ফারক এবং মধ্য লোহাগাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত) শাহিন আকতার।

৫ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী জানান, উপজেলা শিক্ষা অফিসের মনোরম শিক্ষা ঝুলন্ত উদ্যানটি আমাদের অনেক বেশী ভাল লেগে। আমরা মাঝে মাঝে এ সব ঝুলন্ত উদ্যান এবং টপে পানি দিয়ে পরিচর্চা করি। ঝুলন্ত উদ্যানে অনেক কিছু শিখতে পাই। সুন্দর পরিবেশে আমাদের পড়ালেখা করতে খুব ভাল লাগে।

মধ্য লোহাগাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত) শাহিন আকতার জানান,বিদ্যালয়ে বারান্দা ও কক্ষে এসব ঝুলন্ত উদ্যান ও টব লাগানোর কারণে বিদ্যালয়ে সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। বিদ্যালয়ে আগত সকল শিক্ষার্থীদের পাঠদান শেষে অবসর সময়ে তারা এসব দেখে পড়ালেখার আগ্রহ বেড়েছে। ঝুলন্ত উদ্যান এবং ছাদে টবে পানি দিয়ে পরিচর্চা করতে হয়। আমাদের কে পরিচর্চা কাজে অবসর সময়ে শিক্ষার্থীরা সহায়তা করে থাকে।

উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার মুহাম্মদ ওমর ফারুক জানান, লোহাগাড়ার সকল বিদ্যালয়ের লেখাপড়ার মানোন্নয়নের পাশাপাশি একটু পরিবেশ হোক সেজন্য কাজ করে যাচ্ছি । বিদ্যালয়ে বারান্দা এবং কক্ষে এসব ঝুলন্ত উদ্যানের কারণে শিক্ষার্থীরা পড়ালেখায় আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে।  মনোরম শিক্ষা ঝুলন্ত উদ্যান তৈরি বিদ্যালয়ের জন্য একটি প্রশংসনীয় পদক্ষেপ। পর্যায়ক্রমে সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো ঝুলন্ত উদ্যান তৈরির উদ্যোগ নেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও তিনি জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মুহাম্মদ আহসান হাবীব জিতু জানান, এই বিদ্যালয়ের ঝুলন্ত উদ্যান ও শিক্ষার পরিবেশ সত্যিই অনেক প্রশংসনীয়।এসব দেখে শিক্ষার্থীরা তাদের পড়ালেখায় আরও আগ্রহ সৃষ্টি হবে। সকল বিদ্যালয়ে এসব পরিবেশ সৃষ্টি হলে লোহাগাড়ার শিক্ষার মানোন্নয়নের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা আরও বেশী সুন্দর ও মনোমুগ্ধকর পরিবেশে তাদেরকে গড়ে তুলতে পারবে ।

আরো পড়ুন