বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

“জনগণই আমার শক্তি“চুনতি ইউপির চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদীন জনু কোম্পানী 

প্রকাশিত : ৯:০০ পূর্বাহ্ন বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

 

 

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ 

মোঃ জয়নুল আবেদীন জনু কোম্পানী। চুনতির আপামর জনগণের প্রিয় মানুষ। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত। পর পর দু`বার চুনতির মানুষের বুকভরা ভালবাসা নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছেন প্রশংসিত হয়েছেন সর্বমহলে। উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য পদেও দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

চুনতি ইউপি চেয়ারম্যান মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীন জনু কোম্পানীর সাথে বিভিন্ন বিষয়ে মুখোমুখি হলেন লোহাগাড়ার এক সংবাদকর্মী মোঃ রায়হান সিকদার।

প্রতিবেদকঃ আপনি তো বর্তমান চেয়ারম্যান,আপনি কি আবারও চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চাইবেন?

চেয়ারম্যান জনুঃ হে সাংবাদিক সাহেব, অবশ্যই আমি চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন চাইব,কারণ আমি বর্তমান চেয়ারম্যান। জনগণের বুকভরা ভালবাসা আমার সব প্রাপ্তি।

প্রতিবেদকঃ আপনি বিগত দিনে কয়বার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন?

জনু চেয়ারম্যানঃ আমি প্রথমবারে জনগণের গণরায়ে মানুষের ভালবাসা নিয়ে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান পদে প্রথমবারে নির্বাচিত হয়েছিলাম। পরের বারে (গতবারে) নির্বাচনে নৌকার প্রতীক নিয়ে চুনতির মানুষের রায়ে পুণরায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছি ।

প্রতিবেদকঃ আপনি(জনু চেয়ারম্যান) নির্বাচিত হওয়ার পর মানুষের প্রত্যাশা পূরণে কি কি কাজ করেছেন?

জনু চেয়ারম্যানঃ আমি চুনতি বাসীর সেবক হয়ে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করে আসছি। মানুষের যেকোন বিপদে-আপদে ছুটে গিয়েছি। মানুষের পাশে থেকে সার্বিক সহযোগীতার হাত প্রসারিত করেছি।

প্রতিবেদকঃ আপনি(জনু চেয়ারম্যান) কি কি উন্নয়ন করেছেন?

জনু চেয়ারম্যানঃ আমি সাধারণ মানুষের পাশে থেকে যেমন কাজ করেছি,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে এবং চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের মাননীয় সাংসদ প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপির আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় চুনতির বিভিন্ন এলাকার রাস্তাঘাট কালভাটসহ বিভিন্ন অবকাঠামোগত উন্নয়নে কাজ করেছি। এতে মানুষের ব্যাপক ভালবাসা ও সাড়া পেয়েছি।

প্রতিবেদকঃ আপনি কেন নৌকার প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে চাচ্ছেন আবারও?

জনু চেয়ারম্যানঃ সাংবাদিক হয়ত আপনি অবগত আছেন, বিগত জামায়াত-শিবিবের নাশকতা ও তান্ডবে আমার দু`টি গাড়ি আগুন দিয়ে পুড়ে দিয়েছিল। আমি যেহেতু জনপ্রতিনিধির পাশাপাশি রাজনীতি করি, ষড়ষন্ত্র কারীরা আমার গাড়ি পুড়ে আমার জনপ্রিয়তা কমাতে পারেনি। গতবারেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নৌকা প্রতীক দিয়ে নির্বাচন করার সুযোগ করে দিয়েছেন। এবারেও আমি আওয়ামীলীগের একজন কর্মী হিসেবে এবং বর্তমান চেয়ারম্যান হিসেবে নৌকার দাবী রাখি।

প্রতিবেদকঃ চুনতিতে জনপ্রতিনিধিত্ব করছেন,ইউনিয়ন পর্যায়ে ও উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামীলীগের বিভিন্ন প্রোগ্রামে অাপনার অংশগ্রহণ কেমন ছিল?

জনু চেয়ারম্যানঃ আমি উপজেলা আওয়ামীলীগের কার্যনির্বাহী সদস্য, সাবেক চুনতি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি। দলের দুঃসময়ে আন্দোলন সংগ্রামে মাননীয় সাংসদ মহোদয়, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সম্পাদকসহ সকল নেতৃবৃন্দের সাথে সমন্বয় করে যেকোন ডাকে সাড়া দিয়েছি ।

প্রতিবেদকঃ আপনি তো নৌকা প্রতীকে আবারও মনোনয়ন চাইবেন? নৌকার মনোনয়ন ব্যাপারে কতটুকু আশাবাদি?

জনু চেয়ারম্যানঃ সাংবাদিক সাহেব, আমি রাজনীতি করি দীর্ঘদিন ধরে।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারণ ও লালন করি।
তাই আমি একমাত্র নৌকার দাবীদার। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী নেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে অনেক বেশী আশাবাদী, একজন ক্লিন ইমেজের চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগের কর্মী হিসেবে নৌকা প্রতীক দিয়ে চুনতির মানুষের সেবা করার জন্য পূণরায় সুযোগ করে দিবেন।

পরিবেশে সাংবাদিক রায়হান সিকদার সাহেব আপনাকে অসংখ্যা ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন