বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

মানুষের সেবা করাটাই আমার মূল লক্ষ্যেঃ কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ

প্রকাশিত : ৯:৫৪ পূর্বাহ্ন বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১

 

লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

আলহাজ্ব এম.ওয়াহেদ। তিনি কলাউজান ইউনিয়ন পরিষদ থেকে বার বার নির্বাচিত চেয়ারম্যান। জনপ্রতিনিধির কাজ করে প্রশংসা কুড়িয়েছেন সর্বমহলে।

আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ প্রথমে ১৯৮২ সালে প্রথম বারের মত বিপুল ভোটে মেম্বার পদে নির্বাচিত হয়েছেন। এরপরেও তিনি হাল ছাড়েনি। জনগণের অকুতোভয় ভালবাসা নিয়ে ১৯৯৫সালে জামায়াত সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মৌলানা ইদ্রিসকে পরাজিত করে তিনি প্রথমবারের মত চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।২০১০ সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত হন। পরবর্তী ২০১৬ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগের তথা নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি।তিনি বর্তমানে কলাউজান ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

এম.এ ওয়াহেদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই কলাউজানের বিভিন্ন এলাকার উন্নয়নে কাজ করেছেন।
তিনি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবার পথ থেকেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে বৃহত্তর চট্টগ্রাম-কক্সবাজার উন্নয়ন প্রকল্প অধিনে চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের মাননীয় সাংসদ উন্নয়নের সফল কান্ডারী প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় এলাকার রাস্তাঘাট,কালভার্ট, বড় বড় ব্রিজসহ বিভিন্ন এলাকার মানুষের মাঝে বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, পঙ্গুত্ব ভাতা,মাতৃত্বকালীন ভাতাসহ বিভিন্ন ধরণের ভাতা প্রদান করা হয়েছে।
সামাজিক অবকাঠামো আইআরডিবির আওতায়ও কলাউজানে উন্নয়নমুলক কাজ করা হয়েছে। বলতে গেলে কলাউজানের উন্নয়নের ছোয়ায় পরিণত হয়েছে। তিনি বার বার নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। কাজ করতে ভালবাসেন। করোনাকালীন সময়ে তার নিজস্ব তহবিল হতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদের সাথে সাক্ষাতকালে তিনি উক্ত প্রতিবেদককে জানান, সাংবাদিক ভাই আমি মানুষের পাশে থাকতে ভালবাসি। কলাউজানের মানুষকে নিয়ে ভাবি সবসময়। কলাউজানবাসী আমার স্বপ্ন। আমি তিনবারের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। এলাকার মানুষের বুকভরা ভালবাসা পেয়েছি। যা কোন দিন ভুলার নয়।

সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে এমপি মহোদয়ের আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় কলাউজানের বিভিন্ন এলাকায় বিধবা,বয়স্ক ভাতা, পঙ্গু ভাতা মাতৃত্বকালীন ভাতা প্রদান করা হয়েছে। মাননীয় এমপি মহোদয়ের নিরলস প্রচেষ্ঠায় আমার কলাউজানের বিভিন্ন এলাকায় বড় বড় ব্রিজ,কালভার্টসহ বিভিন্ন ধরণের অবকাঠামোগত উন্নয়ন হয়েছে যা সত্যিই অনেক বেশি প্রশংসনীয়। আপনি তো গত নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন, এবারেও আপনি(আবদুল ওয়াহেদ চেয়ারম্যান) কতটুকু আশাবাদী? এক প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মমতাময়ী মা দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে অনেক বেশী আশাবাদী, যেহেতু কলাউজানের মানুষ আমাকে অনেক পছন্দ করেন, দল আমাকে আগামী নির্বাচনে কলাউজানে নৌকার প্রতীক দিয়ে নির্বাচন করার সুযোগ দিবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ এলাকাবাসীর কাছ থেকে দোয়া,সমর্থন ও সহযোগীতা কামনা করেছেন।

আরো পড়ুন