শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

কর্নফুলীত ছাত্রলীগ নেতা খুন

প্রকাশিত : ১০:১০ অপরাহ্ন শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

চট্টগ্রামের কর্ণফুলী উপজেলায় মামুন আল রশিদ সাগর (২৪) নামে এক ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে ।

নিজ এলাকায় মাদক এবং ইয়াবা ব্যবসা তথা অপরাধ বেড়ে যাওয়ায় তা দমন করতে নিজেই একটি প্রতিরোধ কমিটি করার প্রস্তুতি নেয়। কিন্তু কমিটি করার আগেই অপরাধীরা নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করে  সাগরকে। ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় কর্ণফুলি উপজেলার বড়উঠান ইউনিয়নের শাহমীরপুর জমদার পাড়া নিজ বাড়ির সামনে কুপিয়ে হত্যা করে প্রতিপক্ষরা। একই ঘটনায় আজিজ নামের আরেক আহত যুবককে রক্তাক্ত অবস্থায় চমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

মামুন কর্ণফুলী উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী ছিলেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য নাজিম উদ্দিন জানান, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাড়ীর অদূরে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে মামুনকে আহত করে। আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে নেয়া হয়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

একই ঘটনায় মামুনের সাথে থাকা বড়উঠান ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আজিজুল ইসলাম আহত হন। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মো. ফারুক চৌধুরী বলেন, এলাকায় মাদক ব্যবসা ও জুয়ার আসরের সাথে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করে আসছিলেন মামুন। এ কারণে প্রতিপক্ষের লোকজন তার উপর হামলা চালাতে পারে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কর্ণফুলি থানার ওসি (তদন্ত) হাসান ইমাম বলেন, `কি কারনে ঘটনা ঘটেছে তাৎক্ষণিক ভাবে তা জানা যায় নি। মামুনের পাশের এলাকার কয়েকজনে মিলে কুপালে হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায়। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সাথে জড়িত কেউ রেহায় পাবে না বলে তিনি জানান।`

স্থানীয় সূত্রে জানায়, বিগত এক সপ্তাহ ধরে বড়উঠান ইউনিয়নের শাহমীরপুর জমদার পাড়া এলাকায় মোবাইল চুরি বেড়ে যায়। একই সাথে মাদক ও ইয়াবার ব্যবসাও বাড়তে থাকে। এলাকায় অপরাধ বেড়ে যাওয়ায় ছাত্রলীগ কর্মী মামুন এলাকার লোকজনদের নিয়ে একটি অপরাধ প্রতিরোধ কমিটি করার উদ্যোগ নেয়। আগামী শুক্রবার এলাকার সবাইকে নিয়ে প্রস্তুতি সভা করার কথা ছিল। বুধবার সন্ধ্যায় মামুন এবং তার বন্ধু আজিজ বাড়ি থেকে কিছু দূরে গিয়ে বসে আড্ডা দিচ্ছিল। ওই সময় বহিরাগত কিছু যুবক এবং তাদের এলালাকার কিছু যুবক এসে তাদের উপর অতর্কিত হামলা চালায়।

এসময় দুজনকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে মামুনের মৃত্যু হয়। গুরুতর আহত আজিজ চমেক হাসপাতালের ইমার্জেন্সিতে চিকিৎসাধীন বলে বড়উঠান ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল আলম জানান।

স্থানীয় সূত্রে আরো জানা গেছে, ঘটনার সময় মোটরসাইকেল নিয়ে স্থানীয় কয়েকজনসহ বহিরাগত ৮-১০ জন ঘটনাস্থলে আসে। মামুন ও আজিজ কিছু বুঝে উঠার আগেই তাদের পর অতর্কিত হামলা করে আশিক, আলী আজগরসহ অন্যারা। এ সময় দুজনই রক্তাক্ত জখম হয়।

কর্ণফুলি থানার ওসি মো. আলমগীর জানান, জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে

আরো পড়ুন