শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

স্বতন্ত্র প্রার্থী আমার বিরুদ্ধে ষড়ষন্ত্র করছে,জনগণ ভোট ব্যাংকের মাধ্যমে জবাব দিবেঃ নৌকার প্রার্থী ড.নদভী

প্রকাশিত : ১১:১৮ অপরাহ্ন শনিবার, ১৮ মে ২০২৪

রায়হান সিকদার,দেশবাংলাঃ

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমার জন্য উপহার পাঠিয়েছেন, স্বতন্ত্র প্রার্থীর জন্য তো কোন উপহার পাঠাইনি।স্বতন্ত্র প্রার্থী বিশৃঙ্খলা করলেও আমরা বিশৃঙ্খলা করবো না,তাই সকল নেতাকর্মীদের সজাগ থাকার অনুরোধ জানিয়েছেন চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তথা নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী।তিনি জানান,নৌকা স্বাধীনতার প্রতীক, নৌকা আবদুল হামিদ খাঁন ভাসানির প্রতীক,শান্তির প্রতীক, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর প্রতীক,নৌকা নূর আঃ প্রতীক। অন্ধকার থেকে আলোর জগতে ফিরে আনতে কাজ করেছি। দীর্ঘ ১০টি বছর সাতকানিয়া-লোহাগাড়ায় উন্নয়ন করেছি।কোন দিন সন্ত্রাসীদের প্রশ্রয় দিইনি। টেন্ডার বাজিদের প্রশ্রয় দিইনি। বড় বড় মেঘা প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করেছি। লোহাগাড়ায় প্রথম মডেল মসজিদ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাজ থেকে পেয়েছি। নৌকা নির্বাচিত না হলে শান্তির জনপথ থাকবেনা। একটি সন্ত্রাসীদের কাছে ক্ষমতা চলে যাবে। স্বতন্ত্র,প্রার্থী এমপি নির্বাচন করছে,তিনি এমপি হলে তার সাথে অনেকজন এমপি হয়ে যাবে। কর্মীদের কোন ধরণের হুমকি-ধমকি কে ভয় পাবেন না। তাই আগামী ৭ জানুয়ারী নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে আমাকে পুণরায় সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনে নির্বাচিত করবেন।২১ ডিসেম্বর সকালে লোহাগাড়া সিটিজেন পার্ক চত্বরে আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে
চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তথা নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থী প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভীর সমর্থনে মতবিনিময় সভায় ড. নদভী উক্ত কথাগুলো তুলে ধরেন।সমাজসেবক আলহাজ্ব মোঃ ইসমাঈল মানিকের সভাপতিত্বে লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এইচ এম গনি সম্রাট এবং সাবেক ছাত্রনেতা মিজানুর রহমানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জিয়াউল হক চৌধুরী বাবুল,চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. মোঃ সালেহ জহুর,জেলা পরিষদ সদস্য এরফানুল করিম চৌধুরী,লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহীম কবির, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোঃ জহির উদ্দিন,লোহাগাড়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আখতার আহমদ সিকদার, আওয়ামী লীগ নেতা এসএম আবদুল জব্বার,
দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সদস্য মোঃ মহি উদ্দিন,যুবলীগ নেতা মিয়া মোঃ শাহজাহান, আমিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান এসএম ইউনুচ, চরম্বা ইউপি চেয়ারম্যান মৌলানা হেলাল উদ্দিন,কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এম.এ ওয়াহেদ, লোহাগাড়া সদরের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুচ্ছাফা চৌধুরী,পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসন মানিক,উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আজিজুর রহমান, উপ-দপ্তর সম্পাদক এমএস মামুন,পদুয়া ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান জহির উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা যুবলীগ নেতা নুরুল আলম জিকু, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক ফজলে এলাহি আরজু,যুগ্ন আহবায়ক আবদুল হান্নান মোঃ ফারুক, লোহাগাড়া উপজেলা তাঁতীলীগের সদস্য সচিব জাহাঙ্গীর আলম,লোহাগাড়া উপজেলা জাতীয় শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল হক নুনু, লোহাগাড়া উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি ডাঃ রিটন দাশ,উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম চৌধুরী,যুবলীগ নেতা মিকরাজ উদ্দিন পিন্সু, লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি একেএম আসিফুর রহমান চৌধুরী,বার আউলিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুল ইসলাম,সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল হারুন সাঈদীসহ যুবলীগ, কৃ্ষকলীগ, ছাত্রলীগ,তাঁতীলীগসহ অঙ্গ-সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন