মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

লোহাগাড়ায় আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে ভবন উচ্ছেদের অপচেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রকাশিত : ১২:৩১ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

 

লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় আধুনগর খাঁন হাটে আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে পাকা ভবন উচ্ছেদের অপচেষ্টার প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী পরিবারের সদস্যরা।

১০মার্চ সকালে উপজেলা সদরে স্থানীয় একটি হোটেলে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পাঠ করেন ভুক্তভোগি ডা. শমসুল হক। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন,আধুনগর খাঁন হাট বাজারের দক্ষিণ পাশে পাল পাড়া সড়কের প্রবেশমুখে খতিয়ানভুক্ত পৈত্রিক জায়গায় ১৯৭৯ সালে একটি দুই তলা বিশিষ্ট পাকা ভবন নির্মাণ করে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। ২০০৭ সালে স্থানীয় একটি কুচক্রি মহল ব্যক্তিগত শত্রুতার বশবর্তী হয়ে আমার নির্মিত ভবনের জায়গাটি খাস জায়গা প্রচার করে উপজেলা প্রশাসন বরাবর ভবন উচ্ছেদের আবেদন করে।পরবর্তীতে ২০০৭ সালে আমি উক্ত জায়গাটি খতিয়ানভূক্ত পৈত্রিক সম্পত্তি দাবি করে আদালতে মামলা করি। দীর্ঘ শুনানির শেষে আদালত কর্তৃক দুই দফা তদন্ত ও জায়গা পরিমাপের পর ২০০৯ সালে উক্ত জায়গাটি আমার খতিয়ানভূক্ত বলে আদালত রায় দেন। একই সাথে উক্ত জায়গায় নির্মিত পাকা ভবন স্থিতি রাখতে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেন। উক্ত নিষেধাজ্ঞা এখনো বলবৎ আছে। এমতাবস্থায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ তারিখ চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক কর্তৃক আমার খতিয়ানভূক্ত জায়গার উপর স্থিত পাকা ভবন উচ্ছেদের জন্য নোটিশ জারি করা হয়।কিন্তু কিছু কুচক্রিমহল আদালতের নির্দেশনা গোপন করে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে পুণরায় আমাকে হয়রানি করার জন্য নোটিশ প্রদান করার ব্যবস্থা করেন।

সংবাদ সম্মেলনে ডাঃ শামশুল হকের ছেলে শহীদ, লোহাগাড়া উপজেলা মৎস্য জীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ রাসুসহ লোহাগাড়ার কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

আরো পড়ুন