মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

নির্বাচিত হলে মাদক, দুর্নীতি বন্ধ করবঃ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুল মাবুদ

প্রকাশিত : ২:০৬ অপরাহ্ন মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪

 

রায়হান সিকদার,দেশবাংলাঃ

আসন্ন লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ-২০২৪ নির্বাচন উপলক্ষ্যে অবিভুক্ত সাতকানিয়ার স্বাধীনতা প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী, প্রবীন রাজনীতিবিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুল মাবুদের সাথে এলাকাবাসীর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্যে রাখেন লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী, অবিভুক্ত সাতকানিয়ার স্বাধীনতা প্রথম পতাকা উত্তোলনকারী, প্রবীন রাজনীতিবিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুল মাবুদ।

২৬ এপ্রিল রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপজেলার আমিরাবাদ সোলেমান হাজির পাড়ায় আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন যুদ্ধকালিন কমান্ডার মোস্তফিজুর রহমান চৌধুরী।

অত্র এলাকার কৃতি সন্তান, লোহাগাড়া মা শিশু হাসপাতালের চেয়ারম্যান,বিশিষ্ঠ হোমিও প্যাথিক চিকিৎসক ডাঃ এম খালেদ সাইফু`র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বক্তব্যে রাখেন আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এনামুল হক এনাম, রাজনীতিবিদ ফরিদ আহমদ, এলাকার বাসিন্দা ফরিদ, মফিজ সওদাগর, বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল শুক্বুরসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ।

অনুষ্ঠানে অধ্যাপক রশিদ আহমদ, খাজা ডেকোরেশনের স্বত্বাধিকারী মোঃ আমিনুল হক মামুনসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সভায় বক্তারা জানান, সৈয়দ আবদুল মাবুধকে আগামী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান হিসেবে দেখতে চাই। তিনি একজন যোগ্য মানুষ,সৎ মানুষ।

সভায় লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ আবদুল মাবুদ বলেন, আমি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করে এদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেছি। সাতকানিয়ার স্বাধীনতার প্রথম পতাকা আমি উত্তোলন করেছিলাম।
আমি শপথ নিয়ে বলতে পারি, সাদাকে সাদা বলব, কালো কে কালা বলবো। লোহাগাড়ার শান্তির জনপথ করতে চাই। মাদক মুক্ত লোহাগাড়া হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। নির্বাচিত হলে মাদক বন্ধ হবে, দুর্নীতি বন্ধ হবে। আধুনিক লোহাগাড়া গড়তে কাজ করবো। তিনি আরও জানান, গরীব মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য অার্থিক ভাবে সহযোগীতা করবো। সংবাদকর্মীদের জন্য সাংবাদিক কল্যাণ তহবিল করবো। আমি কারো বিষয়ে সমালোচনা করবোনা,আমি আপনাদের ভা্লবাসা নিয়ে এগিয়ে যেতে চাই।আপনারা যদি সমর্থন দেন, তাহলে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন করতে চাই, আপনারা সমর্থন না দিলে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াবো। দলের কোন প্রতীক নেই।বর্তমান সরকার একটি সুন্দর,সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে চাই। নির্বাচন হবে অবাধ,নিরপেক্ষ। আপনারা কেন্দ্র কেন্দ্রে গিয়ে পছন্দের প্রার্থীকে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।যাকে উপযুক্ত মনে করবেন,তাকে ভোট দিবেন। আমাকে ভোট দেওয়ার কথা বলবোনা। সমাজ কে আধুনিকায়ন করতে চাইলে, দুর্নীতি, অনিয়মের বিরুদ্ধে কথা বলতে হবে, প্রতিবাদ করতে হবে।সমাজ লোভে পড়েছে, দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গড়তে কাজ করতে চাই। তাই আপনারা আমাকে যদি ভাল লাগে, তাহলে আমাকে আপনার ভোটটি প্রয়োগ করবেন বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছি।

আরো পড়ুন