শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

চুনতিতে মসজিদের টাকা নিয়ে গরমিলঃ থানায় লিখিত অভিযোগ

প্রকাশিত : ৩:০০ অপরাহ্ন শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

রায়হান সিকদার,দেশবাংলাঃ

লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি রোসাইঙ্গা ঘোনা আউলিয়া জামে মসজিদের টাকা নিয়ে কয়েকজনের পকেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ব্যাপারে চুনতি ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা নাজিম উদ্দিন প্রকাশ নাজু কোম্পানি বাদী হয়ে নুরুল হুদা, ফজলুল কবির,আবদু্ল হামিদ, মুহাম্মদ ইউসুফ,আবছারকে বিবাদী করে লোহাগাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, চুনতি আউলিয়া জামে মসজিদে পরিচালনায় উক্ত বিবাদীসহ এলাকার আরও কয়েকজন দায়িত্বে রয়েছে। বিগত কিছুদিন পুর্বে উক্ত কমিটি নিয়ে দু দফায় কথা কাটাকাটির ঘটনাও ঘটেছে। মসজিদের টাকা দিয়ে উল্লেখিত বিবাদীগণ জমি কেনার নামে ১০/১২ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলেও অভিযোগে উল্লেখ।

এ ব্যাপারে নাজিম উদ্দিন প্রকাশ নাজু কোম্পানি জানান, আমি সমাজ পরিচালনা কমিটির সভাপতি দায়িত্ব পালন করছি। সমাজের মসজিদ হিসেবে আমারও দায়িত্ব রয়েছে। আমার সাথে কোন কথা না বলে নামকোয়াস্তে কমিটি দিয়ে পরিচালনা করছে মসজিদ কমিটি। যেকোন সময় বিবাদীগণের সাথে ঘটনা ঘটতে পারে। তাদের সাথে সমাজে দু বারের মত কথা কাটাকাটি হয়েছে। আমি চাই মসজিদ সুন্দরভাবে চলুক। বিষয়টি সংশ্লিষ্ঠ প্রশাসনের কাছে সুষ্ঠু তদন্তপুর্বক সমাধানের জন্য,সুদৃষ্ঠি কামনা করছি।

অভিযোগ পাওয়ার পর ১৬ এপ্রিল বিকেলে মসজিদ এলাকায় তদন্ত করতে যান লোহাগাড়া থানার এএসআই মশিউর রহমান।তিনি এ সময় দুপক্ষর লোকজনের সাথে কথাও বলেন।

অভিযোগের তদন্তকারি কর্মকর্তা এএসআই মশিউর রহমান জানান, মসজিদ কমিটির টাকার বিষয়ে অভিযোগ পাওয়ার পর অামাদের ওসি স্যারের নির্দেশে সেখানে গিয়েছি।ওসি স্যার উভয়রপক্ষকে ডেকে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত দেবেন।

অভিযুক্ত নুরুল হুদা জানান, তারা মসজিদের কোন টাকা আত্মসাৎ করেনি। বিগত কমিটির আমলে মসজিদে সহকারি ক্যাশিয়ারের দায়িত্ব পালন করছি।বর্তমানে কোন কমিটি নেই। সমাজের সবাইকে নিয়ে বসে। তবে সম্প্রতি হামিদ,ফজুসহ মিলে আমাকে মসজিদের কার্যক্রমের মধ্যে সম্পৃক্ত করে।হিসার নেওয়ার জন্য বসলে সবকিছু আয়-ব্যয় বের হয়। মসজিদের জমাকৃত টাকা দিয়ে গেল রমজান মাসে মসজিদের পার্শ্বে মসজিদের নামে ১০ লাখ টাকা দিয়ে আড়াই কানি জায়গা নিয়েছি। সেগুলো রেজিট্রিও সম্পন্ন হয়েছে।ইউসুফ মসজিদে ক্যাশিয়ারের দায়িত্ব পালন করছে। সুন্দরভাবে মসজিদ পরিচালনা করে যাচ্ছি। মসজিদ আল্লাহ ঘর। কোন দিন মসজিদের টাকা নিয়ে গরমিল করার সুযোগ নেই। আমার সাথে নাজিম কোম্পানীর সাথে কোন শত্রু,নেই।

আরো পড়ুন