শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

চুনতিতে ঈদের নামাজের সময় নির্ধারণকে কেন্দ্র করে আহত ৬,একজন গুলিবিদ্ধ, আটক ৩

প্রকাশিত : ৩:০৪ অপরাহ্ন শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

 

রায়হান সিকদার, দেশবাংলাঃ

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলা চুনতিতে ঈদ জামায়েতের সময়কে কেন্দ্র করে উভয়পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধসহ ৭ জন আহত হয়েছে।

বুধবার (১০ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের সাতগড় মৌলভী বাজার এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন যথাক্রমে গুলিবিদ্ধ মাওলানা আবুল বশর (৫০), আবুল হাশেম (৭০), মো. ইফহাদুল ইসলাম বাবু (১৮), আকতার আহমদ (৬৫), আবদুল লতিফ হোছাইনি (৪৪), মো. আবদুল মজিদ হোছাইনি (৩৫) ও এডভোকেট আবদুল ওয়াহেদ হোসাইনি (৪০)।

এ ঘটনার পর পরই তিনজনকে আটক করেছে লোহাগাড়া থানা পুলিশ। তারা হলেন যথাক্রমে মৌলানা শহীদুল হক হোসাইনী, আবদুল ওয়াহেদ হোসাইনী, মোমেন।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা গেছে, সাতগড় শাহ আতাউল্লাহ হোছাইনী (রাহ.) প্রকাশ বুড়া মাওলানা সাহেব কেন্দ্রীয় শাহী জামে মসজিদের কমিটি নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। বিরোধের জের ধরে ঘটনার রাতে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় পুনরায় সংঘর্ষ হবার আশংকা রয়েছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

চুনতি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মসজিদ পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব জয়নুল আবেদিন জানান, দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলমান থাকায় প্রায় দুই মাস পূর্বে উক্ত মসজিদ কমিটিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি খোরশেদ আলম চৌধুরীকে আহবায়ক ও তাকে সদস্য সচিব করে নতুন কমিটি গঠন করা হয়।এরপর উভয় পক্ষকে পর্যায়ক্রমে এক সপ্তাহ করে দায়িত্ব পালনের নির্দেশ দেয় হয়। চলতি সপ্তাহ যেই পক্ষ দায়িত্ব পালন করছেন, তারা মসজিদে ঈদের জামায়াত সাড়ে ৮টায় আদায় করার ঘোষণা দেন। এদিকে ঘটনার রাতে আরেকপক্ষ মসজিদে এসে ঈদের জামায়াত সাড়ে ৭টায় আদায় করাে ঘোষণা দেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ সংঘটিত হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান আরো জানান, চলতি সপ্তাহ যেই পক্ষ দায়িত্ব পালন করছেন তারা নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী মসজিদে ঈদের জামায়াত আদায় করবেন। তাদের ঈদ জামায়াত শেষে চাইলে অন্যপক্ষ ঈদের জামায়াত করতে পারবেন।

এদিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন লোহাগাড়া থানার ওসি (তদন্ত) খাইরুল ইসলাম খান, চুনতি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আলাউদ্দিন, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদিন, এসআই জালাল উদ্দিন।

লোহাগাড়া থানার ওসি (তদন্ত) খায়রুল ইসলাম খাঁন জানান,উভয়পক্ষের ঘটনায় খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ নিয়ে এসেছি। এ ঘটনায় জড়িত তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) মুুহাম্মদ ইনামুল হাসান জানান, মসজিদ কমিটির সময় নির্ধারণ নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা কোনভাবেই কাম্য নয়। এ বিষয়ে পরবর্তীতে কোন ধরণের সংঘটিত হলে আমরা উপজেলা প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা নিবো।

আরো পড়ুন